দীপ্ত

Sudipto Gupta

বাঁচতে চেয়েছিল তোর প্রতিবাদী হাথ
বাইশ বছরের স্ফুলিঙ্গ হঠাত
হারিয়ে গেল যেন কোথায়

লড়বো, করবো আশা মনে জিতবো
হয়েত, অন্য ভোরে পুরবো
মনের সাধ অন্য হোথায়

মাথা পেতে ধরে রাখ শোষনের লাঠি
স্বপ্ন বুক চৌচির, মরণকাঠি
বিপ্লব লাশকাটা ঘরে লোটায়

বাবার বেহালা পুত্রশোকের ছড়
স্তব্ধ সঙ্গত দিনবদলের ঝড়
একাকীত্বের পাথর আজ সেথায়

“কেউ বলেনা”, শেষ লেখা অভিমান ভরি
“তুই এসেছিস? আয় পাশে বোস – গল্প করি”
শব্দেরও অকালমৃত্যু এথায়