ওয়ান স্টপ প্রতিবাদ শপ

বেচুদার আসল নাম কেউ জানে না। হয়েতো পাড়ার দোকানটা খোলার পর থেকেই ওই নামটি অর্জন করেছেন। নিপাট ভালোমানুষ – উইকডেতে গোলগাল ভাত-ডাল-ঝিঙেপোস্ত আর মাসে একবার আরসালান মার্কা চেহারা। দোকানের কুলুঙ্গিতে প্রথমে কালীঘাট আর তারপর উত্তরোত্তর দোকানের উন্নতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এখন তিরুপতি পৌছেছেন। দোকানের সামনের ভিড় একটু খালি হতে সাইড হয়ে দাঁড়ালাম – আমার স্রেফ বেচুদার সঙ্গে শনিবারের দুপুরের একটু খেজুরির জরুরত – খদ্দের আটকাতে যাব কোন দুঃখে?

“কুশ-পুত্তলিকা আছে?”
প্রশ্নটা শুনে বেশ অবাক হয়ে তাকালাম খদ্দেরের দিকে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝায় আটকে পরা শীতের দুপুরের রোদে ঠিকরে বেরোচ্ছে চাপা ক্রোধ। খদ্দরের পাঞ্জাবি আর আধুনিক শাসন ব্যবস্থার মত রং চটে যাওয়া ডেনিমের প্যান্ট। দোকানের সিড়ির নীচে ওই একই টেম্পলেটএর আরো জনা তিনেক।
“কি ধরনের চাইছেন?”, বেচুদা বেশ নির্বিকার চিত্তে পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন খরিদ্দারের দিকে। অবাক হলাম – কুশ-পুত্তুলিকা যে ওভার দা কাউন্টার পাওয়া যায় সেইটে বিলকুল জানা ছিল না। একটু সেঁটে দাঁড়ালাম কোনার দিকে। ব্যাপারটা বোঝা দরকার
“লম্বা মতন – রোগা প্যাটকা হলে চলবে না কিন্তু। পোড়ানো হবে তাই অনেক্ষণ ধরে জ্বলবে এমনটাই দেবেন।”, স্পেক ছুড়ে দিলেন খরিদ্দার, নীচু হয়ে স্টক ঘাঁটতে থাকা বেচুদার দিকে
“এই নিন। এইটা লেটেস্ট। কেমিকালি ট্রিটএড বিচালী। জ্বালানোর সঙ্গে সঙ্গে ধরে যাবে আর অন্তত আধঘন্টা পোড়ার গ্যারেন্টি। টি ভি র ক্যামেরাম্যান যে ওখানেই থাকবে বা ঝটপট এসে পড়বে তার তো কোনো গ্যারেন্টি নেই। আর বেস্ট ব্যাপারটা হলো যে গলগল করে সাদা ধোঁয়া বেরোবে – টি ভি প্রোডিউসারদের সঙ্গে পার্টনারশিপে তৈরী – সাদা ধোঁয়া অনেক বেশি ড্রামাটিক এমনটি মনে করছেন সবাই।” বেচুদা নিজের নামের প্রতি সুবিচার করে বেশ প্রত্যয়ের সঙ্গে প্রডাক্টের গুনাগুন বর্ণন করলেন।
“দিয়ে দিন তিন পিস”
“আজকাল স্রেফ পুত্তলিকা তো আর চলছে না ভাই – টি ভি ওয়ালারা কইছেন ভিউআর রা আলাদা করতে পারছেন না কোন ইসু তে আপনাদের প্রতিবাদ। আমরা নতুন পুত্তলিকা পার্সনালায়সেশন সার্ভিস চালু করেছি – টেস্ট ড্রাইভ নেবেন নাকি?”, আমার নাকের কাছে একটা মাছি ভন ভন করছিল। চাপড় মেড়ে হটাতে গিয়ে স্ট্যাচু হয়ে গেলুম বেচুদার কথা শুনে। “আপনাদের প্রতিবাদটা ঠিক কি নিয়ে বলবেন?”, পার্সনালায়জ করতে উদ্যোগী বেচুদা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন খদ্দর-পাঞ্জাবির দিকে
“এম এস ধোনি। শালা ষড়যন্ত্র করে সচিনকে কাটিয়েছে টীম থেকে। ভাবতে পারেন ইন্ডিয়া খেলবে পাকিস্তানের সাথে উইথ নো সচিন টু কেলাও উমর গুল? তাই গোষ্ঠ পালের পদতলে আমাদের প্রতিবাদ – ‘সচিন ফেরাও ধোনি ভাগাও'”
“অ। বুয়েচি। জাস্ট দুটো এক্সট্রা জিনিষ সাজেস্ট করছি – দেখবেন সোজা ‘সাতটার শিরোনাম’ এ সিওর ইনক্লুশন। একটা পরচুলো নিয়ে নিন স্ট্রেট হেয়ারের আর একটা ইন্ডিয়া টি-শার্ট। কম দামে করে দেব আপনাদের।ওরে বাপি, ধোনি চুল আর ব্লিড ব্লু শার্ট দে রে এক সেট।” বেচুদা হাঁক পারলেন দোকানের পেছন দিকে মাথা ঘুরিয়ে
“শার্টটা একটু রং চটা মনে হচ্ছে যে?”, ক্রেতার কঠিন দৃষ্টি থেকে রেহাই পেলেন না বেচুদা
“হে হে … তাই তো ডিসকাউন্ট দিছি স্যার। এইটা লাস্ট টাইম ‘রিটায়যার সচিন নাও’ ওয়ালারা নিয়ে গেছিলেন। ওনাদের স্রেফ বাঁশের ডগায় লটকে প্রতিবাদ ছিল তাই সেল-ব্যাক স্কিমে শার্টটা ফেরৎ দিয়ে গেছিল। প্রতিবাদ তো – ফুটপাথে পেড়ে ফেলে একটু লাথালাথি হয়েই যায় – একটু রং তো উঠবেই ভাই।”
সচিনের অবসর দাবি থেকে অবসর প্রতিবাদীরা নিজ মাল বুঝে দাম চুকিয়ে চলে গেলে ধরলাম বেচুদাকে
“কি যে বলিস, আমি কি আবার ওই স্ট্রাটেজি ফ্র্যতেজি বুঝি নাকি?”, বেচুদা বিনয়ে একটু গদগদ হয়ে পড়লেন। “ওই সেন-বাড়ির ছেলেটা আছে না, দিন রাত ফোনে ঘাড় গুঁজে থাকে? সেই বলল এই ব্যাপারটা শুরু করতে। বাপিকে একটা পুরনো ল্যাপটপ দিয়েছি।কাজের ফাঁকে একটা ইন্টারনেট ডনগেল্ লাগিয়ে নজর রাখে, ওই কি বলে, টুইটার ট্রেন্ডস এর পাতায় – ওই সেন-বাড়ির ছেলেটাই দেখিয়ে দিয়েছে। সেখান থেকেই আইডিয়া আসে আর স্টক বাগিয়ে বসে থাকি। খাসা ব্যবসা কিন্তু – ডবল মার্জিন দ্যান ওনলি কুশ-পুত্তলিকা। একটু লোক জানাজানি হয়ে গেলেই দেখবে সবাই আমার দোকানেই আসছে। ওয়ান স্টপ প্রতিবাদ শপ।” বেচুদা সোয়েটারের ফাঁকে ভুঁড়িতে হাত বুলোতে বুলোতে বেশ উজ্জল স্ব মার্কেটিং মহিমায়।”তোমার সঙ্গে তো অনেক লোকের চেনাজানা – একটু বলে দিও তো – আজকাল তো প্রতিবাদটা বেশ ভালো শিল্প – তাই না?”
কোনমতে আমার এক প্যাকেট বাপি চানাচুরটা কিনে দাম চুকিয়ে সিঁড়ি বেয়ে নিচে নামতে নামতে শুনলাম নেক্সট খদ্দের হাজির বেচুর পসরায়
“ধর্ষণের প্রতিবাদ বেচুকাকা। তিনটে পুত্তলিকা চাই উইথ পার্সনালিসেশন – বখাটে রংচঙে শরীর চাপা টি-শার্ট আর চোঙ্গা প্যান্ট। দামটা ঠিক ধরবেন কিন্তু – শার্ট প্যান্ট ফেরত হবে। আর পুত্তলিকাগুলো একটু মজবুত দেবেন – গলায় লটকে ঝোলানো হবে – মট করে মটকে যেন না যায়”
Leave a comment

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: